কোন জব এ’ই তো ক্লায়েন্ট রিকোয়ারমেন্ট মিলে না। ৯০% সাক্সেস, ১০০ ঘন্টা কাজ বা এমন কিছু থাকেই। তাহলে বিড করবো কোন কাজ এ ?

প্রতিটা জব ভালমত দেখুন, এনালাইসিস করুন। প্রথম দিকে ৯৫% জব এ’ই আপনি এপ্লাই করতে পারবেন না। এটাই তিক্ত সত্য। দিন যাবে কম্পিটিশন বাড়বে, এটাই স্বাভাবিক। আপনাকে সারভাইব করতে হলে বাকি থাকা ৫% থেকে ফাইট করে কাজ বেড় করতে হবে। ভাগ্য সুপ্রসন্ন হলে ইনভাইট পেয়ে যেতে পারেন। সে সুযোগগুলো কাজে লাগিয়ে প্রথম শুরুটা করতে হবে।

অনেকেই বলে যে জব ক্রাইটেরিয়া না মিললেও জব এ এপ্লাই করতে, এপ্লাই করে অনেকেই কাজ পেয়েছে। আবার একই সাথে উল্টা-পাল্টা এপ্লাই করে অনেকে একাউন্ট হারিয়েছে। কোন রিস্কটা আপনি নেবেন সেটা আপনার কল। তবে আমি বলবো যেগুলো ক্রাইটেরিয়া মিলবে শুধু সেগুলোই এপ্লাই করুন। কেন বলছি সেটারও একটা ব্যখা দেয়ার চেষ্টা করছিঃ

ধরেন আপনি খাবারের দোকানে খাবার অর্ডার দিলেন, এবং অর্ডার এর সময় বলে দিলেন আপনার খাবারে যেন, মরিচ, এলাচ, দারচিনী দেয়া না হয়। কিন্তু খাবার যখন পেলেন তখন দেখলেন সেগুলো খাবারে দেয়া আছে। এখন বাধ্য না হলে কিন্তু আপনি সে খাবার খাবেন না। অথবা খেলেও বিরক্ত হয়ে খাবেন।

একজন ক্লায়েন্ট যখন জব পোস্ট করে তখন সে সেই ক্রাইটেরিয়াগুলো দেয় কারন সে চায় ঐ ধরনের প্রপোজাল সে না পাক। এরপরেও যদি আপনার সেই জব এ বিড করেন, সেক্ষেত্রে আপনার জব পাওয়ার চান্স প্রায় শূন্য এর কাছাকাছি থাকবে এটাই স্বাভাবিক। আর যারা এ ধরনের বিড করেও জব পায় সেক্ষেত্রে হয় ক্লায়েন্ট পছন্দমত কোন কভার লেটার পায়নি, অথবা ক্লায়েন্ট খুব কমে কোন বিড পেয়ে শুধু বাজিয়ে দেখার জন্য সেই কাজ দেয়।


নতুনদের জন্য আপ ওয়ার্ক এ ধৈর্য্য ধরে অপেক্ষা করা শিখে নেয়া অত্যাবশক এবং যেকোন ক্ষেত্রেই এটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটা ব্যপার।

 


কেমন হলো জানাবেন। ভাল লাগলে শেয়ার করতে পারেন বন্ধুদের সাথে।  কোণ প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট সেকশনে জানাতে পারেন। ধন্যবাদ সবাইকে।

Kazi Mamun

Kazi Mamun

আমি কাজী মামুন, পেশায় ওয়েব ডেভেলপার। ইউ.আই. ইউ.এক্স এবং ওয়ার্ডপ্রেস নিয়েই কাজ করা হয়। এর বাইরে নতুন নতুন গ্যাজেট নিয়ে ঘাটা-ঘাটি করতে ভাল লাগে। টেকনোলজি নিয়ে টুকটাক লেখালেখি, মাঝে মাঝে ইউটিউব ভিডিও বা পডকাস্ট করতে ভাল লাগে।

আপনার মতামত দিন...